কর্মসাথী প্রকল্প কি ? কিভাবে আবেদন করবেন? | Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021

Spread the love

কর্মসাথী প্রকল্প কি ? কিভাবে আবেদন করবেন? | Karma Sathi Prakalpa In West Bengal 2021 : বন্ধুরা আজ বিশ্বে অন্যতম বড়ো সমস্যা হলো বেকার সমস্যা| কোনো দেশ ও জাতির সার্বিক উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন যুব সমাজের শক্তি কিন্তু প্রতি বৎসর কোটি কোটি যুবক যুবতী বেকার হয়ে বসে আছে|তারা ধীরে ধীরে কর্ম ক্ষমতা হীন হয়ে পড়ছে যা তাদেরকে এক আশাহীন অন্ধকার এর দিকে ঠেলে দিচ্ছে|

Table of Contents

কর্মসাথী প্রকল্প কি 2021? – Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021

কর্মসাথী প্রকল্প কি Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021
কর্মসাথী প্রকল্প কি Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021

আমাদের রাজ্যের বেকার যুবক যুবতীদের আশার আলো দেখাতে রাজ্য সরকার বিভিন্ন প্রকল্প চালু করেছে|পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেকার যুবক যুবতীদের স্বনির্ভর করার জন্য এই প্রকল্প শুরু করেছেন। এই প্রকল্পের নাম কর্মসাথী প্রকল্প “Karma Sathi Prakalpa”। কর্মসাথী প্রকল্পের ( karma sathi prokalpo ) মাধ্যমে প্রতি বছর ১ লক্ষ বেকার যুবক যুবতীকে স্বনির্ভর করার লক্ষ্য মাত্রা নেওয়া হয়েছে। আগামী তিন বছর এই প্রকল্প চলবে বলে জানা যাচ্ছে। এই প্রকল্পের জন্য 500 কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

এই প্রকল্পে রাজ্যের অধীনস্থ সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যমে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়া হবে। লোনের সাথে সাথে থাকবে ভর্তুকির সুযোগ এবং সুযোগ কিস্তিতে লোন শোধ করার সুবিধে।তাই এই প্রকল্পের সহায়তায় বেকার যুবক যুবতীরা ছোট উৎপাদন প্রতিষ্ঠান বা ক্ষুদ্র ব্যবসা শুরু করে নিজেরা স্বাবলম্বী হতে পারবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল।

কর্মসাথী প্রকল্প এর বৈশিষ্ট্য

  • এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের তরুণ যুবকদের loansণ প্রদান করা হবে।
  • 200ণ 200000 টাকা পর্যন্ত প্রদান করা হবে।
  • বেকার যুবকদের দেওয়া loans ণের মাধ্যমে তারা এমন একটি পরিবেশ তৈরি করতে সক্ষম হবে যা তাদের ভাল চাকরি ও সুযোগসুবিধা প্রদান করবে।
  • ডব্লিউবি সরকার ইতোমধ্যে ১৫,০০০ / – টাকা অনুমোদিত হয়েছে শহুরে বেকার যুবকদের স্বনির্ভর করতে 500 কোটি টাকা।
  • loans গুলি রাজ্য সরকারের মালিকানাধীন সমবায় ব্যাংকগুলি প্রদান করবে। আশা করা যায় যে বেকার যুবকরা এই প্রকল্পের আওতায় সহায়তা করেছেন তারা ছোট উত্পাদন কার্যক্রম গ্রহণ করতে সক্ষম হবে এবং তাই স্বনির্ভর হবে।

কর্মসাথী প্রকল্প এর মূল উদ্দেশ্য

  1. এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থানে উদ্যোগী ও আগ্রহী করে তোলা।
  2. রাজ্যের গ্রামীণ ও শহর উভয় ক্ষেত্রেই স্বনিযুক্ত কর্মসংস্থান এর সুযোগ তৈরি করা।
  3. রাজ্যের যুব উদ্যোক্তাদের পরিষেবা ও ব্যবস্যা বাণিজ্য সহ নুতুন উদ্যোগ তৈরিতে এবং এবং ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান স্থাপনে সহায়তা করা।
  4. পরিষেবা ও ব্যবসাসহ নতুন উত্পাদন উদ্যোগ এবং ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠায় রাজ্যের উদ্দীপনা বা সম্ভাব্য উদ্যোক্তাদের সুবিধার্থে রাজ্যের গ্রামীণ এবং শহর উভয় ক্ষেত্রেই স্ব-কর্মসংস্থানের উপকারী সুযোগ তৈরি করা।
  5. এই স্কিমটি আর্থিক সহায়তা প্রদান এবং অনুরাগী এবং সম্ভাবনাময় তরুণ উদ্যোক্তাদের একটি স্ব-কর্মসংস্থান যুব হিসাবে তাদের নিজস্ব ব্যবসা শুরু করতে সহায়তা করবে যা ভবিষ্যতে নিয়োগকর্তা হয়ে উঠবে এবং আরও বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে।
  6. এই প্রকল্পের আওতায় উত্পাদন, পরিষেবা, এবং ব্যবসায়িক / ব্যবসায় ক্ষেত্রে যে কোনও নতুন আয়-উত্পাদন প্রকল্প গ্রহণের জন্য loan এবং ভর্তুকি সরবরাহ করা হবে 2 লক্ষ টাকা।
  7. কর্ম সাথী loan শর্তে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সমবায় ব্যাংক প্রদান করবে।

কর্মসাথি প্রকল্পের মেয়াদ

  • প্রকল্পটির বিজ্ঞপ্তি নং হলো : 1825/MSMET-18011(11)/4/2020।
  • বিজ্ঞপ্তি বেরিয়েছে : 9th September, 20।
  • আগামি তিন বৎসর ধরে চলবে।

যারা এই প্রকল্পের আওতায় আসবেন

  • কর্মসাথি প্রকল্পের সমস্ত শর্তগুলি পূরণ করে যে কেউ সম্ভাব্য উদ্যোক্তা আবেদন করতে পারবেন।
  • একটি পরিবার থেকে কেবলমাত্র একজনই আবেদন করতে পারবেন।
  • এখানে পরিবার বলতে বাবা-মা এবং স্ত্রী এর কথা বলা হচ্ছে।

বয়সের সময়সীমা

১৮ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে যে কেউ এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারেন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা

  • আবেদনকারীর শিক্ষাগত যোগ্যতা নূন্যতম ক্লাস এইট(viii) পাস হতে হবে।
  • তবে কর্মসংস্থান ব্যাংকের নাম নথিভুক্ত থাকলে অগ্রাধিকার পাবেন।

এই প্রকল্পে কোন ধরণের প্রজেক্ট গ্রাহ্য হবে?

এই প্রকল্পের আওতায় যে কোনও নতুন উৎপাদন , পরিষেবা এবং বাণিজ্য / ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে প্রকল্প গ্রহণের জন্য গ্রাহ্য হবে। সহজ কিস্তিতে লোন এবং এবং ভর্তুকি দিয়ে সাহায্য করা হবে। 2 লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়া হবে । সহজ কিস্তিতে লোনটি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সমবায় ব্যাংক থেকে দেওয়া  করা হবে।

কি পরিমানে সরকারি ভর্তুকি  পাওয়া যাবে?

এই প্রকল্পের আওতায় সরকারী ভর্তুকির দুটি ধরণ রয়েছে।

ক) প্রকল্পের ভর্তুকি

প্রকল্প ব্যয়ের 15% অথবা ২৫ হাজার টাকা যেটি নূন্যতম হবে।

খ) সুদের ভর্তুকি

সমবায় ব্যাংকে উদ্যোক্তা যে বার্ষিক সুদ দেবে, তা দেওয়া হবে।

  1. সুদ সঠিক ভাবে সময়মতো প্রদান করলে সুদের ৫০% দেওয়া হবে। এই ৩ বৎসরের জন্য প্রজোয্য।
  2. অন্যান্য ক্ষেত্রে ৪০ % সর্বোচ্চ তিন বৎসরের জন্য।

এই প্রকল্পে নিজস্ব বিনিয়োগ কতখানি লাগবে?

karma sathi prokalpo ( ) এ আপনার প্রজেক্ট অনুমোদিত হলে নিম্নলিখিত ভাবে নূন্যতম নিজস্ব বিনিয়োগ আপনাকে করেত হবে।

1. প্রকল্পের ব্যয় ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত হলে 

সমস্ত বিভাগের আবেদনকারীর জন্য প্রকল্পের মোট ব্যয়ের ৫% হারে নিজস্ব বিনিয়োগ করতে হবে।

2. প্রকল্পের ব্যয় ৫০,০০০ এর উপরে হলে

C / S. T / মহিলা / স্বতন্ত্র সংখ্যালঘু / সংখ্যালঘুদের জন্য প্রকল্প ব্যয়ের ৫% এবং অন্যান্য দের ক্ষেত্রে ১০ % হারে নিজস্ব বিনিয়োগ করতে হবে।

এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য নিম্নলিখিত কাগজপত্র প্রয়োজন

‘karma sathi prokalpo’ (কর্মসাথী প্রকল্প) আবেদনপত্রটি সঠিক ভাবে পূরণ করতে হবে। সাথে নিম্নলিখিত কাগজপত্র গুলো দিতে হবে। প্রতিটি ফটোকপি তে আবেদনকারীর স্বাক্ষর করে দিতে হবে।

  • পরিচয়ের প্রমাণ (ছবি সহ)।
  • স্থায়ী বসবাসের  সাটিফিকেট।
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণ পত্র 
  • এসসি / এসটি / ওবিসি / সংখ্যালঘু / ভিন্নভাবে সক্ষম শংসাপত্রের Xerox – যে প্রকল্পগুলো প্রযোজ্য:-
  • প্রকল্প রিপোর্ট ।
  • বয়সের উপযুক্ত প্রমাণ পত্র।

 আবেদন কিভাবে করবেন? (Apply Online WB Karma Sathi Prakalpa Scheme Application Form 2021)

Karma Sathi Prakalpa (কর্মসাথী প্রকল্প) এর আবেদন Online এবং Offline উভয় ভাবে করা যায়।

OFFLINE

কর্মসাথী প্রকল্প কি Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021
কর্মসাথী প্রকল্প কি Karma Sathi Prakalpa Scheme In West Bengal 2021
  • উদ্যোক্তা কে নির্দিষ্ট বয়ান এ কর্মসাথি পোর্টাল এর মাধ্যমে অথবা সরাসরি আবেদন পত্র জমা করে আবেদন করতে হবে।
  • আবেদন পত্র একদম বিনামূল্যে পাওয়া যাবে নিম্নলিখিত অফিস থেকে :-
  1. গ্রামীণ এলাকায় নিকটবর্তী বি ডি ও (B.D.O) অফিস।
  2. পৌরসভা এলাকায় নিকটবর্তী এস ডি ও (S.D.O) অফিস।
  3. এলাকায় বসবাস করলে Kolkata Municipal Corporation (KMC)।
  4. এছাড়াও জেলার District Industries Centre (DIC) এর অন্তর্গত MSME Facilitation Centre (MFC)।

ONLINE

পদক্ষেপ 1 :- অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ যান WB Karma Sathi Prakalpa Scheme i.e. karmasathi.wb.gov.in.

পদক্ষেপ 2 :- হোমপেজে, “Apply Now” বোতামটিতে ক্লিক করুন। লগইন ট্যাব পপআপ করুন এবং  Register লিঙ্কে ক্লিক করুন।

পদক্ষেপ 3 :- অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম পৃষ্ঠাটি স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে।

পদক্ষেপ 4 :- এখন প্রয়োজনীয় বিশদ লিখুন (নাম, পিতা / স্বামীর নাম, জন্ম তারিখ, লিঙ্গ, মোবাইল নম্বর, ইমেল, স্বল্প এবং অন্যান্য তথ্য হিসাবে সমস্ত বিবরণ উল্লেখ করুন) এবং নথি আপলোড করুন upload

পদক্ষেপ 5- চূড়ান্তভাবে আবেদন জমা দেওয়ার জন্য সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।

কর্ম সাথী প্রকালপা প্রকল্প 2020-21 এর সুবিধাভোগী তালিকা কীভাবে পরীক্ষা করবেন?

পদক্ষেপ 1 :- অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ যান WB Karma Sathi Prakalpa Scheme i.e. https://wb.gov.in/government-schemes.aspx.

পদক্ষেপ 2 :- হোমপেজে, “Beneficiary list of Karma Sathi Prakalpa Scheme” বোতামে ক্লিক করুন।

পদক্ষেপ 3 :- উপকারকারীর তালিকা স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে।

পদক্ষেপ 4 :- বেনিফিশিয়ারির তালিকায় নাম অনুসন্ধান করুন।

আমাদের শেষ কথা

তাই বন্ধুরা, আমি আশা করি আপনি অবশ্যই একটি Article পছন্দ করেছেন (কর্মসাথী প্রকল্প কি ? কিভাবে আবেদন করবেন? | Karma Sathi Prakalpa In West Bengal 2021 )। আমি সর্বদা এই কামনা করি যে আপনি সর্বদা সঠিক তথ্য পান। এই পোস্টটি সম্পর্কে আপনার যদি কোনও সন্দেহ থাকে তবে আপনাকে অবশ্যই নীচে মন্তব্য করে আমাদের জানান। শেষ অবধি, যদি আপনি Article পছন্দ করেন (কর্মসাথী প্রকল্প কি), তবে অবশ্যই Article টি সমস্ত Social Media Platforms এবং আপনার বন্ধুদের সাথে Share করুন।


Spread the love

Leave a Comment

error: